শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০২:০০ পূর্বাহ্ন

করোনা ভাইরাস
***   সবচেয়ে সাধারণ উপসর্গসমূহ   ***   জ্বর   ***   শুকনো কাশি   ***   ক্লান্তিভাব   ***   কম সাধারণ   ***   উপসর্গসমূহ   ***   ব্যথা ও যন্ত্রণা   ***   গলা ব্যথা   ***   ডায়রিয়া   ***   কনজাংটিভাইটিস   ***   মাথা ব্যথা   ***   স্বাদ বা গন্ধ না পাওয়া   ***   ত্বকে ফুসকুড়ি ওঠা বা আঙুল বা পায়ের পাতা ফ্যাকাসে হয়ে যাওয়া
সংবাদ শিরোনাম :
বড়দলে ভ্রাম্যমান আদালতে ১৩০০ টাকা জরিমানা কলারোয়ায় মিথ্যা মাদক মামলার দায় হতে ইজিবাইক চালক পুত্রকে অব্যাহতি চেয়ে মায়ের সংবাদ সম্মেলন সমাজে নারী নির্যাতন ও ধর্ষণ রোধে পুলিশের পাশাপাশি জনগনকে ও এগিয়ে আসতে ……..রেঞ্জ ডিআইজির পুলিশ সুপার তোফায়েল আহ‌ম্মেদ কালিগঞ্জে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বন্ধে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে সাতক্ষীরায় আইওএম এর উদ্যোগে তিনদিন ব্যাপী রিফ্রেশার্স ট্রেনিংয়ের সমাপ্তি। কালিগঞ্জ থানাকে মডেল ও আদর্শ থানায় রূপান্তর করতে স্বচেষ্ট আছি …….অফিসার ইনচার্জ মোঃ দেলোয়ার হুসেন যশোরে চোলাই মদসহ ১ মাদক ব্যাবসায়ী আটক মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বীরমুক্তি যোদ্ধা ডাঃ হযরত আলী’র ইন্তেকাল কালিগঞ্জের কৃষ্ণনগরে জমির সীমানা নিয়ে বিরোধে বৃদ্ধার মৃত্যু খুলনা-৬ সাবেক এমপি এ্যাড. নুরুল হক আর নেই
মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বীরমুক্তি যোদ্ধা ডাঃ হযরত আলী’র ইন্তেকাল

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বীরমুক্তি যোদ্ধা ডাঃ হযরত আলী’র ইন্তেকাল

ইশারাত আলী :

 মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, যুদ্ধকালিন সংগ্রাম পরিষদের কালিগঞ্জ উপজেলার সভাপতি ডাঃ হজরত আলী(৯০) ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না ইলাহি ওয়াইন্নাইলাহি রাজিউন)।  আজ (৪আগস্ট মঙ্গলবার) বিকাল ৪টা ৪৫ মিনিটে নিজ বাস ভবনে বার্ধক্যজনীত কারনে তার মৃত্যু হয় । দীর্ঘদিন তিনি বার্ধক্যজনিত অসুস্থতায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে ডাঃ হযরত আলী  ৩ পুত্র, ৪ মেয়ে সহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

ডাক্তার হযরত আলী তৎকালিন সময় সাতক্ষীরা জেলায় হাতে গোনা মাত্র ক’জন এমবিবিএস ডাক্তারের মধ্যে অন্যতম ছিলেন । একজন ডাক্তার হিসেবে সেবার ব্রত নিয়ে তিনি  মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয় অংশগ্রহন করেন। তিনি মুাক্তযুদ্ধের একজন দক্ষ সংগঠক ছিলেন। যুদ্ধকালিন সময় নিজ দায়িত্বে বাংলাদেশী শরণার্থী শিবির গুলোতে চিকিৎসা সেবা প্রদান করতেন।

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরে তিনিই প্রথম কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাকালিন সভাপতির দায়িত্ব মাতা পেতে নেন। একটি সুখী সমৃদ্ধ কালিগঞ্জ গঠন করাই তার ইচ্ছেছিল।

তিনি বিভিন্ন ইস্যুতে কালিগঞ্জের জনবহুল এলাকায় প্লাকার্ড হাতে নিয়ে একাই প্রতিবাদ করতেন। তিনি কালিগঞ্জের অন্যতম একজন ব্যক্তি যিনি জানোয়ার রাজনীতিবিদদের বিরুদ্ধে মাথা উঁচু করে কথা বলতেন।

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, যুদ্ধকালিন সংগ্রাম পরিষদের কালিগঞ্জের সভাপতি, কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাকালিন সভাপতি হয়েও তিনি মুক্তিযুদ্ধের সার্টিফিকেট গ্রহণ করেননি কিম্বা কোন ভাতা নিতেননা।

যুদ্ধকালিন সংগ্রাম পরিষদের কালিগঞ্জের সভাপতি বীরমুক্তি যোদ্ধা ডাঃ হযরত আলী’র ইন্তেকালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2020 www.satkhiranews24.com
Hosted By LOCAL IT