17 January 2018 , Wednesday
Bangla Font Download
সর্বশেষ খবর »

You Are Here: Home » জাতীয় » এনডিএফ’র সংবাদ সম্মেলনে বি. চৌধুরী নির্বাচন বাতিল করে নতুন নির্বাচন দিন

bc
সাতক্ষীরা নিউজ ২৪ ডটকম ঃ
বিকল্প ধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, সদ্য সমাপÍ দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে তথাকথিত উল্লেখ করে বলেছেন, পৃথিবীর একটিমাত্র দেশ ছাড়া সবাই বলছে এই নির্বাচন সঠিক হয় নাই। নির্বাচন কমিশন সরকারের প্ররোচণায় জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। তিনি অবিলম্বে নির্বাচন বাতিল করে পরবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠানে আলোচনায় বসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানান।
বি.চৌধুরী মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিকল্প ধারা বাংলাদেশ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি), কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের সমন্বয়ে নবগঠিত জাতীয় গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট (এনডিএফ) অয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।
সংবাদ সম্মেলনে এনডিএফ-এর পক্ষ থেকে নির্বাচন বাতিল, পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষ গঠন, নিদর্লীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠান, সভা-সমাবেশ সেমিনার-সিম্পোজিয়ামের ওপর থেকে বিধিনিষেধ প্রত্যাহারের জন্য সরকারের প্রতি এবং লাগাতার হরতাল, অবরোধ, সহিংসতা, জ্বালাও-পোড়াও বন্ধ করার জন্য বিরোধী দলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।
বি. চৌধুরী বলেন, এই তথাকথিত নির্বাচনে ৫ কোটি লোককে তাদের ভোট থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে। বাকি ৪ কোটি ভোটারের মধ্যে মাত্র দুই থেকে আড়াই শতাংশ লোক ভোট দিয়েছে। কিন্তু এই ভোটের শতাংশ হার বের করতে নির্বাচন কমিশনের ৪দিন সময় লাগার কথা নয়। এটা বের করতে ২ ঘন্টার বেশি লাগার কথা নয়।
তিনি বলেন, তথাকথিত নির্বাচনে কমিশন ন্যাক্কাজনক ভূমিকা পালন করেছে। তারা সরকারের প্ররেচণায় জনগণের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। এই নির্বাচনের মাধ্যমে দেশের ৯৫ ভাগ মানুষকে লাঞ্ছিত এবং গণতন্ত্রের পরীক্ষায় বাংলাদেশকে পরাজিত করা হয়েছে। পৃথিবীর বা গণতন্ত্রের ইতিহাসে এ রকম নজির নেই বলে বি. চৌধুরী মন্তব্য করেন।
বিরোধী দলের নেতা খালেদা জিয়াকে নিজ বাড়িতে অবরুদ্ধ রেখে এবং জাতীয় পার্টির প্রধান এইচএম এরশাদকে গলফ মাঠে পাঠিয়ে ভোট চাইতে শেখ হাসিনা স্বাধীনভাবে সারাদেশ ঘুরে বেরিয়েছেন উল্লেখ করে সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, তার পরও সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখতে ৫ পারসেন্টের হবু প্রধানমন্ত্রী লজ্জা পাননি। আক্ষেপও করেননি। যারা নিবাচনে অংশ নেয়নি তাদের ৯৫ ভাগই কি রাজাকার প্রশ্ন করে বি. চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্য নিন্দনীয় এবং তা প্রত্যাহার করা উচিত।
প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, জনগণ আপনাকে চায় না। নৌকা মার্কা সরকার ও নৌকা মার্কা বিরোধী দল ছাড়া আর কেউ আপনাদের সঙ্গে নেই। সুতরাং প্রহসনের নির্বাচন বাতিল করে অলোচনার মাধ্যমে অবিলম্বে নতুন নির্বাচন দিন।
আসম আবদুর রব বলেন, প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে গণতন্ত্র ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করা হয়েছে। ধোকাবাজির এই নির্বাচনের জন্য দেশের মানুষ প্রধানমন্ত্রীকে অবিশ্বাস করেছেন।
বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম বলেন, জ্বালাও-পোড়াওয়ের আন্দোলন কখনও সফল হবে না। বড় দুই দলের দুই ধরনের রাজনীতির বাইরে এনডিএফ-এর পতাকাতলে সমবেত হওয়ার জন্য তিনি জনগণের প্রতি আহ্বান জানান।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জেএসডির সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালকে রতন। উপস্থিত ছিলেন বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, কৃষক-শ্রমিক-জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার বীর প্রতীক এবং একই দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী প্রমুখ।
(প্রেস বিজ্ঞপ্তি)

Use Facebook to Comment on this Post

Leave a Reply

Editor : ISHARAT ALI, 01712651840, 01835017232 E-mail : satkhiranews24@yahoo.com, rangtuli80@yahoo.com


Site Hosted By: WWW.LOCALiT.COM.BD