18 November 2017 , Saturday
Bangla Font Download
সর্বশেষ খবর »

You Are Here: Home » জাতীয়, বিভাগীয় সংবাদ, মিডিয়া, সর্বশেষ সংবাদ » দেশবরেণ্য সাংবাদিক আতাউস সামাদ আর নেই

ঢাকা: দেশবরেণ্য সাংবাদিক আতাউস সামাদ আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার রাত নয়টা ২৫ মিনিটে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

জানা যায়, রাতে বাসায় ফিরে পরিবার-পরিজনদের সঙ্গে আলোচনা করে দাফনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হলে আতাউস সামাদকে রোববার সন্ধ্যায় অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রবীণ এই সাংবাদিক কয়েকদিন ধরেই অসুস্থবোধ করছিলেন।

বুধবার দুপুরে তার শরীরে একটি অস্ত্রোপচার করা হয়। এর আগে সোমবার রাতেও তার জটিল অস্ত্রোপচার করা হয়। তিন দফায় তার শরীরে অস্ত্রোপচার করা হয়। পরে তাকে ঢাকার অ্যাপোলো হাসপাতালে আইসিইউতে ভেনটি-লেশন দিয়ে রাখা হয়।

এর আগে সোমবার রাত আটটা থেকে তিনটা পর্যন্ত প্রায় আট ঘণ্টাব্যাপী তার শরীরে জটিল ভাসকুলার অপারেশন হয়। দু’পায়ে রক্ত চলাচল বন্ধ, হার্ট ও কিডনি ব্লক হয়ে যাওয়ায় প্রবীণ এ সাংবাদিকের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। এজন্য প্রায় দেড় ঘণ্টা অস্ত্রোপচার করে তার বাম পা কেটে ফেলা হয়। কিডনি সচল রাখার জন্য ডায়ালাইসিস করা হয়।

পরিবারের সদস্যরা জানান, আতাউস সামাদের স্ত্রী কামরুন্নাহার রেনুও অসুস্থ। তিনি বারিধারার বাসায় অবস্থান করছেন। সঙ্গে রয়েছেন তার ছোট মেয়ে সামিয়া সামাদ শান্তা। তার বড় মেয়ে কানাডা প্রবাসী। তিনি আজ ঢাকায় ফিরছেন বলে জানা যায়।

মরুহম দেশবরেণ্য সাংবাদিক  আতাউস সামাদ ১৯৩৭ সালের ১৬ নভেম্বর ময়মনসিংহ জেলায় জন্ম গ্রহণ করেন। ১৯৫৬ সালে তিনি সাংবাদিকতা শুরু করেন।

দীর্ঘ কর্মজীবনে দেশ-বিদেশের বেশ কয়েকটি নামিদামি সংবাদ মাধ্যমে সাংবাদিকতা করেন খ্যাতিমান এই সাংবাদিক। কর্মজীবনে কিছুদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খন্ডকালীন শিক্ষক হিসেবেও দায়িত্বপালন করেন তিনি।

তৎকালীন পাকিস্তান অবজার্ভার (অধুনালুপ্ত বাংলাদেশ অবজার্ভার) এর চিফ রিপোর্টার হিসেবে দায়িত্বপালন করেন ১৯৬৫ সাল থেকে ৬৯ সাল পর‌্যন্ত। ১৯৬৯ থেকে ৭০ সাল পর‌্যন্ত তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সাংবাদিক ইউনিয়নের (ইপিইউজে) সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। জাতীয় প্রেসক্লাবের আজীন সদস্য ছিলেন তিনি।

১৯৭২ সাল থেকে ৭৬ সাল পর্যন্ত কাজ করেন বাসস’র নয়া দিল্লির বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে। ১৯৮২ থেকে ৯৪ সাল পর‌্যন্ত বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিসের বাংলাদেশ প্রতিনিধি ছিলেন আতাউস সামাদ। মৃত্যুর আগ পযন্ত দেশের বহুল প্রচলিত জাতীয় পত্রিকা দৈনিক আমার দেশ’র প্রধান সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। একইসঙ্গে তিনি ‘সাপ্তাহিক এখন’ পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন আতাউস সামাদ।

Use Facebook to Comment on this Post

Leave a Reply

Editor : ISHARAT ALI, 01712651840, 01835017232 E-mail : satkhiranews24@yahoo.com, rangtuli80@yahoo.com


Site Hosted By: WWW.LOCALiT.COM.BD