17 January 2018 , Wednesday
Bangla Font Download
সর্বশেষ খবর »

You Are Here: Home » জাতীয়, বিভাগীয় সংবাদ, মিডিয়া, সর্বশেষ সংবাদ » ২৬ জুন সাংবাদিকদের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ঘেরাও

ঢাকা: সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনির খুনিদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে আগামী ২৬ জুন প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান ও তার কার্যালয় ঘেরাও করবেন সাংবাদিকরা। এর আগে সাংবাদিকদের নিরাপত্তায় আইন প্রণয়নে ৫ জুন সংসদের স্পিকার বরাবরে স্মারকলিপি দেবেন তারা।

এসব কর্মসূচি পালনের আগে আগামী ২০ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত পত্রিকা, সংবাদ সংস্থা ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়াসহ সব সংবাদ মাধ্যমে গিয়ে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সরকারের প্রতি দাবি-দাওয়া বিষয়ে আলোচনায় বসবেন সাংবাদিক নেতারা।

মঙ্গলবার দুপুরে একই দাবিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচি শেষে পরবর্তী এই কর্মসূচি ঘোষণা দেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি ইকবাল সোবাহন চৌধুরী। মঙ্গলবার বেলা সোয়া ১১টায় এ কর্মসূচি শুরু হয়। অষ্টম ওয়েজ বোর্ড ঘোষণার দাবিতে আগামী ২৭ মে তথ্য মন্ত্রণালয় ঘেরাও কর্মসূচিরও ঘোষণা দেন ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

কর্মসূচিতে বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), জাতীয় প্রেস ক্লাব, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি (ডিআরইউ), দৈনিক আমার দেশ, প্রবাসী সাংবাদিক ফোরাম- সৌদি আরব ও কিংডম অব বাহরাইন প্রমুখ সাংবাদিক সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, এসব কর্মসূচির পরেও সরকার সাংবাদিকদের দাবি-দাওয়া পূরণ না করলে সারা দেশের সব ধরনের গণমাধ্যমে কর্মবিরতির মতো কঠোর কর্মসূচি হাতে নিতে বাধ্য হবেন সাংবাদিকরা।

তিনি বলেন, আমাদের একটিই দাবি, নিরাপত্তার সঙ্গে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সুযোগ চাই। বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে সাংবাদিক হত্যাকারী ঘাতক বাস চালকদেরও বিচারের দাবি জানান তিনি।

বিএফইউজের আরেক সভাপতি রুহুল আমিন গাজী বলেন, “সাগর-রুনির খুনিদের গ্রেফতারে ব্যর্থতার দায়িত্ব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুনকেই নিতে হবে।”

নিউজ টুডের সম্পাদক রিয়াজউদ্দীন আহমদ বলেন, জনগণের ধারণা সরকার খুনিদের আড়াল করেছে।

তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুনের অবস্থান ব্যর্থতার দিক থেকে এক নম্বরে। স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি আন্দোলনের মাধ্যমেই আদায় করতে হবে বলে” –সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন প্রবীণ এই সাংবাদিক।

কামাল উদ্দিন সবুজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, আপনি সাংবাদিকদের এ কর্মসূচি থেকে বার্তা গ্রহণ করুন এবং নিজেকে পরিশুদ্ধ করুন। সাংবাদিকরা নিরাপত্তাহীনতায় থাকলে সাধারণ মানুষ কী অবস্থায় আছে সেটি সরকারকে বুঝতে হবে।

দৈনিক আমার দেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান বলেন, সাগর-রুনির রেখে যাওয়া এতিম শিশু মেঘের কান্না স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কানে যাচ্ছে না। গোয়ান্দা পুলিশের ব্যর্থতার পরও যদি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সন্তুষ্ট থাকেন তাহলে দেশ কোন দিকে যাচ্ছে সেটি আর বুঝতে বাকি নেই।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, “আন্দোলনের মাধ্যমেও যদি খুনিদের আইনের আওতায় না আনা যায় তাহলে আগামীতে সাংবাদিকদের পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হবে।”

বৈশাখী টিভির প্রধান বার্তা সম্পাদক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল বলেন, “রাজপথে আসতে সরকার সাংবাদিকদের বাধ্য করেছে।”

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিয়ন্ত্রিত কোনো সংস্থা (গোয়েন্দা পুলিশ) ব্যর্থ হলে সেটির দায়ভার কে নেবে- প্রশ্ন রাখেন তিনি।

তিনি বলেন, “দিন দিন আন্দোলন ভিন্ন মাত্রায় রূপ নিচ্ছে। সম্পাদকরাও কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছেন। তাই সরকারকে গণমাধ্যমের ভাষা বুঝতে হবে।”

মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল বলেন, সাগর-রুনি খুনের ঘটনায় আমরা সব সাংবাদিক মিলে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করতে চাই এবং সেটি একযোগে সব গণমাধ্যমে প্রচারের অনুরোধ জানাবো।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন বাদশা বলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বোঝা উচিত যে, আমরা সুশৃঙ্খলভাবে আন্দোলন করছি। তারপরও সরকারের টনক নড়ছে না। সড়ক দুর্ঘটনায় পা হারানো সাংবাদিক নিখিল ভদ্রের চিকিৎসায় পাঁচ লক্ষ টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

তিনি বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত সাংবাদিক বিভাস চন্দ্র সাহার স্ত্রীকে চাকরি দিতে হবে। নয়তো সাগর-রুনি হত্যার আন্দোলনের সঙ্গে এটিও যোগ হবে। কর্মসূচিতে এক দফা এক দাবি, সাহারা তুই কবে যাবি বলে স্লোগান দেন বিক্ষুব্ধ সাংবাদিকরা।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি রাতের কোনো এক সময় নিজ বাসায় খুন হন মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার ও তার স্ত্রী এটিএন বাংলার সিনিয়র রিপোর্টার মেহেরুন রুনি। পরদিন রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারের বাসা থেকে সাগর-রুনির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনার পর ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে খুনিদের গ্রেফতারের আশ্বাস দিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও বারবার বলেছেন তদন্তের অগ্রগতির কথা।

Use Facebook to Comment on this Post

Leave a Reply

Editor : ISHARAT ALI, 01712651840, 01835017232 E-mail : satkhiranews24@yahoo.com, rangtuli80@yahoo.com


Site Hosted By: WWW.LOCALiT.COM.BD