17 January 2018 , Wednesday
Bangla Font Download
সর্বশেষ খবর »

You Are Here: Home » জাতীয়, বিভাগীয় সংবাদ, মিডিয়া, সর্বশেষ সংবাদ » গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বাধা সহ্য করা হবে না

ঢাকা: সাংবাদিক সাগর-রূনি হত্যায় সংবাদ প্রকাশে গণমাধ্যমের প্রতি হাইকোর্টের রুল জারির বিষয়ে কঠোর সমালোচনা করেছেন সাংবাদিক নেতা ইকবাল সোবহান চৌধুরী। বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের অনশন চলাকালে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, আদালতের স্বাধীনতার জন্য যেমন আমরা সংগ্রাম করি তেমনি আমাদের পেশাগত দায়িত্বে স্বাধীনতার জন্য আদালতকেও সহায়তা করা দরকার।

তিনি বলেন, হাইকোর্টের জারি করা রুলটি অনাকাঙ্ক্ষিত এবং অনভিপ্রেত। গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় কোনো প্রকার বাধা আসলে আমরা সেটি প্রতিহত করতে সর্বদা প্রস্তুত’’ বলেও জানান তিনি। আদালত যেমন নিজের স্বাধীনতা চায়, তেমনি আমরাও আমাদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে স্বাধীনতা চাই।

সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী বলেন, “আমরা সাংবাদিকরা সব ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ হয়েছি। কোনো চক্রান্ত করে আমাদের এই ঐক্য কেউ নস্যাৎ করতে পারবে না।

তদন্ত নিয়ে নানা টালবাহানা শুরু হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, “এই হত্যাকাণ্ড নিয়ে এখন নাটকের রিহার্সেল চলছে।”
তিনি বলেন, “আদালত এমন সিদ্ধান্ত দিতে পারে না। খুনিরা গ্রেফতার না হওয়া পর্যন্ত আমরা (সাংবাদিক সমাজ) ঘরে ফিরবো না।”

অনুষ্ঠানে বগুড়ার নির্যাতিত সাংবাদিক কামরুল হাসান চৌধুরী টুটুল বলেন, “আমি ২০১১ সালে কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী দ্বারা পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুর সম্মুখিন হয়েছি। ওই ঘটনায় পুলিশ দোষিদের চিহ্নিত করেও গ্রেফতার না করে তাদের পক্ষে রিপোর্ট দিয়েছে আদালতে। এর প্রেক্ষিতে আদালত বিষয়টিতে সন্তুষ্ট না হয়ে পুনঃতদন্তের নির্দেশ দেন। এতেই প্রমাণ হয় পুলিশের ভুমিকা সাংবাদিকদের প্রতি কতোটা রহস্যজনক।” তিনি সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের প্রকৃত দোষিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

সাগর-রুনি হত্যায় প্রকৃত দোষীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবসহ সারা দেশে গণঅনশন কর্মসূচি পালন করছেন সাংবাদিকরা।

গত ১০ ফেব্রুয়ারি রাতের কোনো একসময় রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারে ভাড়া বাসায় খুন হন মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার ও এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি। পরদিন সকালে পুলিশ তাদের লাশ উদ্ধার করে। তখন ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে অপরাধীদের খুঁজে বের করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। তবে ঘটনার ২০ দিন পেরিয়ে গেলেও এ হত্যাকাণ্ডের কোনো ক্লু উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এ নিয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করেছেন।

Use Facebook to Comment on this Post

Leave a Reply

Editor : ISHARAT ALI, 01712651840, 01835017232 E-mail : satkhiranews24@yahoo.com, rangtuli80@yahoo.com


Site Hosted By: WWW.LOCALiT.COM.BD