19 January 2018 , Friday
Bangla Font Download
সর্বশেষ খবর »

You Are Here: Home » সাতক্ষীরা সদর » যুগিখালি ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন, কামারালিতে জামায়াত নেতা সহিংসতার আসামি খালেক মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে পানি ঘোলা করছে

Exif_JPEG_420

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি :
সাতক্ষীরার কলারোয়ার যুগিখালি ইউনিয়নের কামারালি গ্রামে একটি বাড়ির সীমানা প্রাচীর নির্মানকে কেন্দ্র করে স্থানীয় জামায়াত ও শিবির কর্মীরা ইউপি চেয়ারম্যান ও তার দল আওয়ামী লীগের ভাবমুর্তি বিনষ্ট করছে। এ ঘটনা নিয়ে জামায়াত নেতা কয়েকটি নাশকতার মামলার আসামি সমাজে অশান্তিসৃষ্টিকারী আবদুল খালেক মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে পানি ঘোলা করার চেষ্টা করছেন।
মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা বলেন যুগিখালি ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল হাসান। এ সময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন ইউপি সদস্য আবুদুল জলিল, আমিরুল ইসলাম, শাহজাহান আলি, আবদুর রশীদ, খোরশেদ আলম, আবুবকর সিদ্দিক, মফিজুল ইসলাম, আবদুর রাজ্জাক, আবদুল হামিদ, শামসুর রহমান, আরশাদ আলি, মো. আসাদুজ্জামান, রমজান আলি, আবু জাফর সোহাগ প্রমুখ নেতা।
রবিউল হাসান তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আবদুল খালেকের ভাই আবদুল হামিদ তার দেড় শতক জমি মোকাররম আলির কাছে বিক্রি করেন। এই জমি দখল নিয়ে দুইপক্ষে বিবাদ দেখা দিলে ইউনিয়ন পরিষদ সালিশ বিচার করে একটি লিখিত আপোসনামা তৈরি করে দেয়। এতে দুই পক্ষই স্বাক্ষর করে। এরই ভিত্তিতে মোকাররম আলি গত ২৩ আগস্ট তার ক্রয়কৃত জমিতে সীমানা প্রাচীর নির্মান শুরু করেন। এতে চেয়ারম্যান হিসাবে আমি ও আমার সদস্যরা শান্তি রক্ষায় সহযোগিতা করি মাত্র। এতে আমার ও আমার ইউপি সদস্যদের অন্য কোনো স্বার্থ ছিলনা।
চেয়ারম্যান রবিউল হাসান সম্প্রতি জামায়াত নেতা আবদুল খালেকের সংবাদ সম্মেলনের বক্তব্য খন্ডন করে বলেন ‘আমি কোনো বাহিনী সেখানে নিয়ে যাইনি। আমার লাইসেন্স করা অস্ত্র দেখিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগ সম্পূর্ন মিথ্যা। এমনকি তাদের বাড়ির দশজনকে মারপিট করে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগও বানোয়াট। পুলিশের কাছে থাকা সহিংসতার বহু মামলা থেকে রক্ষা পাবার লক্ষ্যে খালেক এসব নাটক করছেন। এসব কিছু আবদুল খালেকের অপপ্রচার জানিয়ে চেয়ারম্যান বলেন আবদুল খালেক ও আবদুল আলিম এলাকার ভয়ংকর জামায়াত নেতা । তারা ২০১৩ সালে পুলিশের ওপর বোমা নিক্ষেপ, গাছ কাটা, রাস্তাকাটা, সহিংসতা সৃষ্টি, মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের নেতাকর্মীদের বাড়িতে অগ্নিসংযোগসহ নানা অপকর্মের সাথে জড়িত। তারা এলাকা জুড়ে জামায়াতি তান্ডব সৃষ্টি করে মানুষের শান্তি ও ঘুম নষ্ট করেছেন। এখন নানা কল্প কাহিনী বানিয়ে চেয়ারম্যান ও তার সদস্যগন এবং আওয়ামী লীগের ভাবমুর্তি বিনষ্ট করার চেষ্টা করছেন আবদুল খালেক ও তার নেপথ্যচারীরা।
চেয়ারম্যান রবিউল হাসান জামায়াত নেতা আবদুল খালেকের অপপ্রচার থেকে সতর্ক থাকার আহবান জানিয়ে এ ব্যাপারে প্রশাসন ও সংবাদকর্মীদের দৃষ্টি আকর্ষন করেন।

Use Facebook to Comment on this Post

Leave a Reply

Editor : ISHARAT ALI, 01712651840, 01835017232 E-mail : satkhiranews24@yahoo.com, rangtuli80@yahoo.com


Site Hosted By: WWW.LOCALiT.COM.BD